গৌরব আর আক্ষেপে মিলেমিশে একাকার সাব্বির রহমান

সাব্বির রহমান, এই সময়ের বাংলাদেশ ক্রিকেটের অন্যতম বিজ্ঞাপন তাকে বলাই যায়। ক্যারিয়ারের শুরুটা বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং অর্ডারে নিচের দিকে হলেও নিজের ব্যাটিং শৈলী দেখিয়ে টপ অর্ডারে জায়গা করে নিয়েছেন। ক্রিকেটের প্রতিটি ফরম্যাটেই বেশ ভালোভাবে জায়গা করে নিয়েছেন। তবে সাব্বির সুলভ ব্যাটিং গতকাল মিরপুর দেখেছে।
নয় চার আর নয় ছয়ে দানবীয় এক ইনিংস খেলেছেন সাব্বির। তার আগে অবশ্য মিরপুরের শেরে বাংলা স্টেডিয়াম দেখেছে মুশফিক আর শাহরিয়ার নাফিসের অনবদ্য ব্যাটিং নৈপুণ্য। দুইজনের চমৎকার এক পার্টনারশিপে বিপিএল এর সর্বোচ্চ রানের পাহাড় গড়ে বরিশাল বুলস।
জবাব দিতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারালেও সাব্বির এক প্রান্তে তুলেছিলেন ঝড়। মুশফিকের মতো তিনিও প্রতিটি শট উপভোগ করেছেন। দৃষ্টিনন্দন নয়টি চার আর নয়টি বিশালাকার ছয়ে সাব্বির ছিলেন অনবদ্য। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডটি এতোদিন ক্যারিবিয়ান দানব ক্রিস গেইলের দখলে থাকলেও বরিশালের বিপক্ষে দুইশ স্ট্রাইক রেটে ১২২ রানের ইনিংস খেললে রেকর্ডটি তার দখলে আসে।

Results

TeamRunsWickets LostOversBPOutcome
বরিশাল বুলস1924204Win
রাজশাহী কিংস1886204Loss


তবে ক্রিকেট মাঝে মাঝে নিষ্টুর হয়। আগুনে পুড়েই খাটিসোনা হয় বলে হয়তো। এইতো সেদিন টেষ্টে নিজের অভিষেকে দারুন এক ইনিংস খেলেও শেষদিনে লড়াই করার সুযোগই পাননি। থেকে গেছেন পরাজিতের দলে। কাল মিরপুরে অনিন্দ্য সুন্দর ইনিংস খেলেও থেকে গেলেন হেরে যাওয়া দলে। জিতেছেন মুশফিকুর রহিম। গৌরব আর আক্ষেপের মাঝের তফাৎ কতো কাছে হতে পারে সাব্বিরের চেয়ে ভালো কে অনুভব করতে পারে এখন। কেউই নয় হয়তো, ক্রিকেটকে গৌরবময় অনিশ্চয়তার খেলা বোধহয় এই কারনেই বলা হয়। নায়ক ও থেকে যেতে পারেন পরাজিত হয়ে!

ম্যানিয়াক্স ডেস্ক
ক্রিকেট ভালোবাসি, কেননা বাংলাদেশকে ভালোবাসি।

Leave a Reply