ভিরাট কোহলির উপরে অবস্থান তামিম ইকবালের

ক্রিকেটের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল ইএসপিএন ক্রিকইনফো ২০১৬ সালের দশটি সেরা ইনিংসের তালিকা করে। তার মধ্যে বাংলাদেশের তামিম ইকবাল এর একটি ইনিংস সেরা দশের সপ্তম স্থানে স্থান পেয়েছে। উক্ত ইনিংসটি ইংল্যান্ডের সাথে দেশের মাটিতে দ্বিতীয় টেস্টে শত রান করা সেই ইনিংস। পরিস্থিতি অনুযায়ী ব্যক্তিগত ইনিংসগুলোর ক্রম নির্ধারণ করা তামিম ইকবালের এই ইনিংসটি এই তালিকায় বিরাট কোহলির উপরে স্থান পেয়েছে। তালিকার সাত নম্বরে থাকা তামিম সম্পর্কে সংবাদ মাধ্যমটিতে লেখা হয়, ‘তার ব্যাটিং শো-অফের মতো। কাভার ড্রাইভ, পুল স্ট্রোকপ্লে দেখার মতো। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে শতরান করে তিনি নিজের ক্ষমতার পরিচয় দেন এবং দলের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন তামিম।

ক্রিকইনফোর এ তালিকায় সবার ওপরে রাখা হয়েছে ইংল্যান্ডের হয়ে বেন স্টোক্সের গত বছর দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে কেপ টাউন টেস্টে ১৯৮ বলে ২৫৮ রানের ইনিংসটি। দ্বিতীয়স্থানে আছেন দ. আফ্রিকান উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান তেম্বা বাভুমা। আর তৃতীয় স্থানে জায়গা পেয়েছে নিউজিল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক ব্র্যান্ডন ম্যাককালাম এর একটি ইনিংস। চতুর্থ স্থানে পাকিস্তানের মিসবাহুল হক ও পঞ্চম স্থানে তার সতির্থ ইউনুস খানের একটি ইনিংস স্থান পেয়েছে। ষষ্ট স্থানে শ্রীলংকানন মারকুটে ব্যাটসম্যান কুশল মেন্ডিসের একটি ইনিংস স্থান পেয়েছে। ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান জেপি ডুমিনি রয়েছেন তামিমের পেছনে। নিচে তালিকার ১০ জন পারফর্মারের নাম ও পারফরম্যান্স দেওয়া হলো।

১। বেন স্টোকস (ইংল্যান্ড) ২৫৮ প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা, কেপ টাউন।

২। তেম্বা বাভুমা (দক্ষিণ আফ্রিকা) ১০২ (অপঃ) প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড, কেপ টাউন।

৩। ব্র্যান্ডন ম্যাককালাম (নিউজিল্যান্ড) ১৪৫ প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া, ক্রাইস্টচার্চ।

৪। মিসবাহ-উল-হক (পাকিস্তান) ১১৪ প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড, লর্ডস।

৫। ইউনিস খান (পাকিস্তান) ২১৮ প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড, দ্য ওভাল।

৬। কুশল মেন্ডিস (শ্রীলঙ্কা) ১৭৬ প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া, পাল্লেকেলে।

৭। তামিম ইকবাল (বাংলাদেশ) ১০৪ প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড, মিরপুর।

৮। জেপি ডুমিনি (দক্ষিণ আফ্রিকা) ১৪১ প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া, পার্থ।

৯। বিরাট কোহলি (ভারত) ২৩৫ প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড, মুম্বাই।

১০। পিটার হ্যান্ডসকম্ব (অস্ট্রেলিয়া) ১০৫ প্রতিপক্ষ পাকিস্তান, ব্রিসবেন।

Leave a Reply