ম্যাচ প্রিভিউঃ ‘ঢাকা ডায়নামাইটস’ বনাম ‘কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স’

বিপিএল সিজন-৪
ম্যাচ #১৩ঃ
‘ঢাকা ডায়নামাইটস’ 🆚 ‘কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স’
সময়ঃ সন্ধ্যা ৭ টা
সরাসরিঃ চ্যানেল নাইন
ভেন্যুঃ শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
 
ক্রিকেটের সৌন্দর্যটা কোথায়? রান করা, উইকেট পাওয়া, ম্যাচ জেতা নাকি চ্যাম্পিয়ন হওয়া? এসবতো আছেই, তবে ক্রিকেটের আসল সৌন্দর্য হলো ক্রিকেট আন-প্রেডিক্টেবল এবং মাঝে মাঝে বড়ই নির্মম। বলছিলাম গুরু মাশরাফিকে নিয়ে। আগের তিন আসরে বিপিএল মাশরাফিকে কি না দিয়েছে? অথচ এই আসরে ম্যাশ এখন পর্যন্ত একটি জয়ও পেলেন না! নিজের দল অবস্থান করছে পয়েন্ট টেবিলের একেবারে তলানিতে। আজ সন্ধ্যায় ঢাকার বিপক্ষে নিজেদের ৪র্থ ম্যাচে কিছুটা ব্যাকফুটে থেকেই নামবে মাশরাফির দল। মূল ভরশার প্রতীক ইমরুল কায়েস রানে নেই! সবাই একসাথে জ্বলে উঠতে পাড়ছেন না। এপর্যন্ত রান বলতে শান্তর একটা অর্ধশতক এবং স্যামুয়েলসের ৪৮! আর বোলিং হচ্ছে যাচ্ছেতাই, শেষ ম্যাচে অবশ্য কিছুটা ঝলক দেখা গেছে। অথচ অনেকরই ভালো করার সামর্থ্য আছে। নিজের দিনে ব্যাটে-বলে মাশরাফি একাই একশো। গত বিপিএলের সেরা খেলোয়াড় জায়দিও এবার দলে আছেন। শুধু দরকার একটি ভালো সূচনা, যা কেবল পারেন ইমরুল কায়েস এবং লিটন দাশ।
 
অপরদিকে ঢাকা এই টুর্নামেন্টের সবচেয়ে শক্তিশালী দল। যদিও তিন ম্যাচে দুই জয় তাদের শক্তিমত্তা সঠিকভাবে প্রদর্শন করে না। প্রথম ম্যাচে মেহেদি মারুফ ৭৫ রান করে একাই টেনে নিয়ে গেছেন। পরের দুই ম্যাচে তরুন মোসাদ্দেক পথ দেখিয়েছেন। এছাড়াও যেকোন সময় জ্বলে উঠতে প্রস্তুত সাকিব, নাসির, সাঙ্গাকারা এবং মাহেলা। ঢাকার বোলিং ডিপার্টমেন্টও অনেক লম্বা। নিজেদের প্রথম ম্যাচেতো অধিনায়ক সাকিব ৯ জন বোলারকে ব্যাবহার করে দেখিয়ে দিলেন। কাগজে কলমে বিবেচনা করলে ঢাকা প্রতিটি ক্ষেত্রেই এগিয়ে থাকবে। তবে সব কিছুর পরেও মাঠের পারফর্মেন্স কথা বলবে।
এসব কিছু বিবেচনা করলে ম্যাচটি কুমিল্লার জন্য কঠিনই হওয়ার কথা। তবে যে টিমের ক্যাপ্টেন মাশরাফি সে টিম আশার আলো দেখতেই পারে। দেখাজাক ক্রিকেটদেবী আজ মাশরাফিকে কিসের সাথে দেখা করিয়ে দেন… ‘আন-প্রেডিক্টেবিলিটি’ নাকি আবারও ‘নির্মমতা’!
 
পয়েন্ট টেবিলে দুই দলের অবস্থানঃ
ঢাকা ডায়নামাইটসঃ ৩ ম্যাচে ২ জয় এবং ১ হারে পয়েন্ট টেবিলে অবস্থান ২ নম্বরে।
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সঃ ৩ ম্যাচে তিনটাতেই হার! পয়েন্ট টেবিলে অবস্থান ৭ নম্বরে।
দুই দলের সম্ভাব্য স্কোয়াডঃ
ঢাকা ডায়নামাইটসঃ
বাংলাদেশি ক্রিকেটারঃ সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মোসাদ্দেক হোসেন, নাসির হোসেন, সানজামুল ইসলাম, আলাউদ্দিন বাবু, সোহরাওয়ার্দী শুভ, মেহেদী মারুফ, মোহাম্মদ শহীদ, ইরফান শুক্কুর, তানভীর হায়দার খান (বাংলাদেশ)
বিদেশী ক্রিকেটারঃ কুমার সাঙ্গাকারা (শ্রীলঙ্কা), আন্দ্রে রাসেল (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), মাহেলা জয়াবর্ধনে (শ্রীলঙ্কা), ডোয়াইন ব্রাভো (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), এভিন লুইস (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), রবি বোপারা (ইংল্যান্ড), সেকুগে প্রসন্ন (শ্রীলঙ্কা), ওয়েইন পারনেল (দক্ষিণ আফ্রিকা), উসামা মীর (পাকিস্তান)
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সঃ
বাংলাদেশি ক্রিকেটারঃ মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), ইমরুল কায়েস, লিটন কুমার দাস, মোহাম্মদ আল আমিন, নাজমুল হাসান শান্ত, নাহিদুল ইসলাম, মোহাম্মদ সাঈফউদ্দিন, মোহাম্মদ শরীফ, নাবিল সামাদ, জসিম উদ্দীন, সৈকত আলী, রাসেল আল মামুন (বাংলাদেশ);
বিদেশী ক্রিকেটারঃ সোহেল তানভীর (পাকিস্তান), ইমাদ ওয়াসিম (পাকিস্তান), আসহার জাইদি (পাকিস্তান), নুয়ান কুলাসেকারা (শ্রীলঙ্কা), থিসারা পেরেরা (শ্রীলঙ্কা), খালিদ লতিফ (পাকিস্তান), শাহজীব হাসান (পাকিস্তান), জেসন হোল্ডার (ওয়েস্ট ইন্ডিজ) রশিদ খান (আফগানিস্তান)

Leave a Reply