শ্রীলঙ্কা সফরের টেষ্ট দল ও নির্বাচকদের ভাবনা

দেশের রত্ন মুস্তাফিজ। পেস বোলিংয়ে তাকে ছাড়া অসহায় যেন লাগছে দল বাংলাদেশকে। ইঞ্জুরির কারণে নিউজিল্যান্ড সিরিজ পুরপোরি খেলতে পারেননি “দ্যা ফিজ” খ্যাত মুস্তাফিজুর রহমান। কোন জয় ছাড়া সিরিজ হারল টাইগাররা। সদ্য সমাপ্ত ভারতের সাথে ঐতিহাসিক একমাত্র টেস্টে ও খেলেননি তিনি। নির্বাচকরা চাইলে ও নিজে থেকে ‘না’ করে দিয়েছিলেন ফিজ।

ফেরাটা অপেক্ষার ছিল। শ্রীলঙ্কা সিরিজে ও কি ফিট ফিজকে পাওয়া যাচ্ছে! প্রশ্নটা সবার মনে সাড়া দিয়েছিল।
প্রধান নির্বাচকের ঘোষণায় সেই প্রশ্নের অবসান হল। শ্রীলঙ্কা টেস্ট সিরিজে সাদা পোশাকের লাল বল হাতে দেখা যাবে তাকে। সাথে ফিরেছেন পেস বোলার রুবেল হোসেন ও। দুই পেসারের অন্তর্ভুক্তি হলে ও ইঞ্জুরির কারনে দল থেকে ছিটকে গেলেন পেসার শফিউল ইসলাম
মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার ১৬ সদস্যের দল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন।
সাবেক অধিনায়ক এর ভাষায় দ্বিতীয় টেস্টে ফিরতে পারেন ইমরুল কায়েস। এজন্য ৪ মার্চ পর্যন্ত অপেক্ষা করবেন নির্বাচকেরা।
“ইমরুল আমাদের অভিজ্ঞ একজন খেলোয়াড়। দূর্ভাগ্যবশত হায়দরাবাদ টেস্টে ও চোটে পেয়েছে। ফিটনেসের জন্য ওকে আমরা দুটি রাউন্ডে দেখবো। ১ মার্চ ওর দ্বিতীয় রাউন্ড শেষ হবে। দুইদিন বিশ্রাম নেওয়ার পর চার তারিখে ফিটনেস টেস্ট দেবে। ওর অবস্থা যদি ভালো থাকে সেক্ষেত্রে দ্বিতীয় টেস্টের জন্য তাকে আমরা দলে নেব।”
এদিকে বাংলাদেশ ক্রিকেট লীগে ভাল পার্ফরমেন্স করে দলে ফিরলেন রুবেল হোসেন। ২৭ বছর বয়সী এই পেসার দেশের হয়ে খেলেছেন ২৪ টেস্ট। নিউজিল্যান্ডের সাথে স্কোয়াডে থাকলে ও জায়গা হয়নি টেস্ট একাদশে। ভারতের সাথে ঐতিহাসিক একমাত্র টেস্টে একাদশে থাকাতো দূরের কথা স্কোয়াডেই ছিলেন না তিনি। এবার দলে থাকাটা নিশ্চিত করে দিল তার বিসিএলের চরম ফর্মে থাকাটাই। অন্য দিকে বাদ পড়েছেন পেসার শফিউল ইসলাম। শফিউল বাদ পড়া আর রুবেলকে দলে নেওয়া ব্যাপারে নির্বাচক মিনহাজুল ব্যাখ্যা ও দিয়েছেন। “সিকান্দারাবাদে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার পর শফিউলের একটু সমস্যা হয়েছে। আমরা ওর ফিটনেস নিয়ে পুরোপুরি সন্তুষ্ট নই। রুবেল বিসিএলে তিন ম্যাচ খেলেছে, সেখানে খুব ভালো বোলিং করেছে।”
আগে থেকে দলে আছেন তাসকিন, রাব্বি ও শুভাশীষ রায়। শফিউল বাদ পড়লে ও তাদের সাথে যোগ হলেন মুস্তাফিজ, রুবেল। যেকোন দলে দু’টি টেস্ট এর জন্যে পাঁচজন সিমার নেওয়ার জন্যে ও কৌতুহল জাগে! জাগবেই বা না কেন এটা যে এশিয়া কন্ডিশন, যেখানে বেশি স্পিনাররা সহায় পান। তবে পাঁচ সিমারের নেওয়ার ব্যাখ্যা ও দিলেন নির্বাচক।

“শ্রীলঙ্কার গলে ঘাসের উইকেট থাকতে পারে। ওরা স্পোর্টিং উইকেট দিলে হয়তো তিন সিমার নিয়ে খেলতে হতে পারে। এখান থেকে বসে বলা সম্ভব নয় আমরা কোন ধরনের উইকেট পাচ্ছি। আমরা চেষ্টা করেছি সবকিছু বিবেচনা করে দলটা বানাতে।”
“পাঁচজন পেসার নেওয়ার একটা যুক্তি আছে। আমাদের দুইদিনের একটা প্রস্তুতি ম্যাচও আছে। আমাদের রবিউলকে (ইসলাম) নিয়ে বাজে একটি অভিজ্ঞতা ছিল। প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার পর টেস্টের প্রথমদিন থেকেই তার সমস্যা হচ্ছিল।”
স্কোয়াডে থাকলে ও ভারত টেস্টে একাদশে জায়গা হয় নি লিটন দাসের। শ্রীলঙ্কা সফরে ও টেস্ট স্কোয়াডে দ্বিতীয় উইকেট রক্ষক হিসেবে রাখা হয়েছে লিটনকে। এদিকে ইমরুল কায়েসের দলে না থাকায় তামিমের সাথে একাদশে বিবেচনা ও করা যেতে পারে বলে আশ্বাস দিয়েছেন বিসিবি নির্বাচক মিনহাজুল।
“যদি উইকেট কিপিং নিয়ে প্রশ্ন হয় তাহলে সোহান অনেক ভালো উইকেটরক্ষক। কিন্তু যদি ব্যাটিংয়ের বিষয়টি সামনে আনা হয় সেক্ষেত্রে এগিয়ে লিটন। লিটনকে আমরা ভালো ব্যাটসম্যান হিসেবে দলে নিয়েছি।”
“দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে চোটে পড়ার আগে দ্বিতীয় উইকেট কিপার হিসেবেই দলে ছিল লিটন। ওর কিপিংয়ের ব্যাপারে আমরা যতেষ্ট আত্মবিশ্বাসী। আগামী মার্চ মাসের ২ তারিখে মোরাতুয়ায় শুরু হবে দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ। ৭ মার্চ গলে শুরু হবে প্রথম টেস্ট। সিরিজের দ্বিতীয় ও বাংলাদেশের শততম টেস্ট কলম্বোয় শুরু হবে ১৫ মার্চ।

শ্রীলঙ্কা সফরে বাংলাদেশ টেস্ট দল: মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, মুমিনুল হক, মাহমুদউল্লাহ, সাকিব আল হাসান, সাব্বির রহমান, লিটন দাস, তাইজুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ, কামরুল ইসলাম রাব্বি, মুস্তাফিজুর রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোসাদ্দেক হোসেন, শুভাশীষ রায় চৌধুরী, রুবেল হোসেন।

Leave a Reply