অজি সূর্যের পতন

অজি সূর্যের পতন

দুরন্ত অস্ট্রেলিয়ান দলের ক্রিকেট বিশ্বে রাজত্ব করার দিন শেষ হয়েছে অনেক দিন হলো। তবে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট এতোটা বিপর্যয়ের মুখোমুখি হবে কোন ক্রিকেটপ্রেমী বোধহয় ভাবেননি। হোবার্টে দক্ষিন আফ্রিকার বিপক্ষে টেষ্ট ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার ৮৫ রানে অল আউট হয়ে যাওয়াতেই নিশ্চিতভাবে অজি সূর্যের পতন হয়নি। সাম্প্রতিক সময়ে এমনটা হয়েছে অনেকবারই। ২০১১ সালেই এই দক্ষিন আফ্রিকার কাছেই ৪৭ রানে অল আউটের লজ্জায় পড়তে হয়েছিলো। তারপর, গত বছর নটিংহ্যাম দেখেছে অজিদের ৬০ রানে গুটিয়ে যাওয়া।

এসবই হয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে, অন্তত ঘরের মাঠে নিজেদের দর্শকের সামনে লজ্জায় পড়তে হয়নি। এবার সেটাও হলো, হোবার্টে অজিরা নিজেদের দর্শকদের সামনে মাত্র ৩২ ওভারের মাথায় অল আউট হয়েছে। ঘরের মাঠে এটি অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় শর্টেষ্ট ইনিংস। এর আগে ওয়াকাতে দুর্ধর্ষ ওয়েস্ট ইন্ডিজের সামনে গুড়িয়ে গিয়েছিলো অস্ট্রেলিয়া, সেটাও ১৯৮৪ সালে। ম্যালকম মার্শাল, জোয়েল গার্নার আর মাইকেল হোল্ডিং এর তোপে কিছু বুঝে উঠার আগেই অজিরা সেবার নিঃশেষ হয়ে গিয়েছিলো। এতোটাই আকস্মিকভাবে যে কোর্টনি ওয়ালস বোলিং করার সুযোগই পাননি।

এবার অজি পতনের মূল কারিগর, ফিলেন্ডার আর কাইল এবোর্ট। উইকেটের ময়েশ্চার ব্যাবহার করে সিম আর সুইং এর মিশেলে অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটিং অর্ডারকে মুহূর্তে গুড়িয়ে দিয়েছেন। অজি ব্যাটসম্যানদের ভিতরে একমাত্র স্টিভেন স্মিথকেই দেখা গেছে কিছুটা প্রতিরোধ করতে। তিনি একাই লড়ে গেছেন, অপরাজিত ৪৮ রানের ইনিংসটি অস্ট্রেলিয়ান স্কোরকার্ডে একেবারেই ব্যাতিক্রম। আরেকজন দুই অংক ছুতে পেরেছেন,আট নাম্বারে ব্যাট করতে নামা অভিষিক্ত জো ম্যানি, দুই বাউন্ডারিতে করেছেন ১০ রান। ২১ রানে পাচ উইকেট তুলে নিয়ে ফিলেন্ডার আর ৪১ রানে তিন উইকেট তুলে নিয়ে কাইল এবোর্ট নেতৃত্ব দিয়েছেন অজিদের নিজেদের দর্শকদের সামনের বিপর্যয়ের।

ম্যানিয়াক্স ডেস্ক
ক্রিকেট ভালোবাসি, কেননা বাংলাদেশকে ভালোবাসি।

Leave a Reply