বিপিএলে বাংলাদেশী সিমাররা এবং কিছু ভাবনা

চট্টগ্রামে ইতিমধ্যে সমাপ্ত হয়েছে বিপিএলের দ্বিতীয় পর্বের খেলা। ছোট্ট একটা বিরতি দিয়ে ঢাকায় আবার শুরু হবে বিপিএল।

এবারের বিপিএলে শুরু থেকেই বাংলাদেশী ক্রিকেটারদের রাজত্ব চলছে। সেটা হোক ব্যাটিং কিংবা বোলিং। সর্বোচ্চ উইকেট শিকারীর তালিকায় হঠাত করেই শীর্ষস্থান দখল করেছেন আফগানিস্তানের মোহাম্মদ নবী।

তবে এই বিপিএলে বাংলাদেশের পেসারদের দিকে আলাদাভাবে আপনাকে নজর দিতেই হচ্ছে। কেননা বিপিএল শেষেই নিউজিল্যান্ডে কনকনে ঠান্ডায় সিমিং কন্ডিশনে খেলতে হবে টাইগারদের। সেখানে পালটা জবাবটা তো আমাদের ও দিতে হবে!

আর বাংলাদেশ ক্রিকেটে এখন অতিরিক্ত একজন পেসার নিয়ে খেলা নিয়মিত চিত্রই। নিউজিল্যান্ডে সমান তালে লড়ার জন্য সীমিত ওভারের ক্রিকেটে মাশরাফি আর মুস্তাফিজ ছাড়াও আরো দুইজন পেসারকে দেখা যাবার সম্ভাবনা প্রবল।

এই বিপিএলে চমৎকার বোলিং করছেন মোহাম্মদ শহীদ, এক ম্যাচ কম খেলেই নবীর সমান ১৪ উইকেট নিয়েছেন বাংলাদেশের নিয়মিত টেষ্ট বোলার। টেষ্ট স্কোয়াডের জন্য নিউজিল্যান্ডে গেলেও সীমিত ওভারের ম্যাচে শহীদ মাশরাফির জন্য ভালো অস্ত্র হতে পারেন তা ইতিমধ্যে প্রমাণ করেছেন তিনি।

নিউজিল্যান্ডের বিবেচিত আরেক বোলার তাসকিন ও ৬ ম্যাচে ১১ উইকেট নিয়েছেন ইতিমধ্যে। বোলিং একশ্যান সুধরানোর পরে তাসকিন যে অকেজো হয়ে যাননি এটাই তার প্রমাণ। নিউজিল্যান্ড এর জন্য বিবেচিত আরেক পেসার শুভাশিস রায়ের বোলিং পারফরমেন্স বলার মতো তেমন কিছুই নয়। দল নির্বাচনের সমস্ত দায়ভার এবং দায়িত্ব নির্বাচক কমিটির। কিন্তু নূন্যতম জবাবদিহিতার সুযোগ থাকলেও শুভাশিস কেনো জাতীয় দলে তার ব্যাখ্যা জাতীর কাছে পরিস্কার করা উচিৎ।

রুবেল হোসেন নিজেকে হারিয়ে খুঁজছেন, তাকে নিজেকে ফিরে পাবার জন্য সময়টুকু দেয়া উচিৎ আমি মনে করি। তবে বিপিএলের ফ্ল্যাট আর স্পিন নির্ভর উইকেটে দারুন বল করে ১৩ উইকেট শিকার করে তৃতীয় স্থানে থাকা শফিউল কেন নেই? যাবার আগে দল পরিবর্তনের সুযোগ থাকলে শফিউলের শুভাশিস এর জায়গায় স্থান পাওয়া উচিৎ।

বিপিএলে,  কেভিন কুপার, ব্রাভো, জুনায়েদ কিংবা সোহেল তানভীরের মতো বিদেশী পেসারদের পাশে বেশ উজ্জ্বল বাংলাদেশি সিমাররা। পারফরমেন্স আর ফর্ম বিচারে দল নির্বাচন করলে নিউজিল্যান্ড সফরে বেশ ভালো করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ এই প্রত্যাশা করাই যায়।

Leave a Reply