টেস্ট অধিনায়কত্বে কি পরিবর্তন আসছে?

বাংলাদেশ এখন বিশ্ব ক্রিকেটের কোন পুচকে দল নয়, বরং সীমিত ওভারের ক্রিকেটে সমীহ জাগানো এক দল। অধিনায়ক মাশরাফির নেতৃত্বে একের পর এক বীরত্বগাথা রচিত হয়েছে। কিন্তু টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের এখনো ঠিক বাংলাদেশ হয়ে উঠা হয়নি।

সাদা পোশাকে মুশফিকুর রহিমের মুখস্থ অধিনায়কত্ব অনেক দিন ধরেই সমালোচিত হয়ে আসছে। সীমিত ওভারের ক্রিকেটে দলের মাঝে যে আগ্রাসী ভাব দেখা যায় পাচ দিনের ক্রিকেটে কোথায় যেন তা হারিয়ে যায়। টেস্ট ক্রিকেটে দলের মাঝে মিলবন্ধনটাও যেন কিছুটা কম। এই জায়গায় সুপার মাশরাফি বিন মর্তুজা অনন্য। এছাড়া সীমিত ওভারের ক্রিকেটে বাংলাদেশের বর্তমান পেস বোলিং এটাক বিশ্বের অন্যতম সেরা হলেও টেস্ট ক্রিকেটে যেন বড্ড বেশি ছন্নছাড়া। তাই টেস্টেও মাশরাফিকে অধিনায়ক হিসেবে দেখতে চান কোটি টাইগার ভক্ত। দল সফলতা না পেলেও এবারের বিপিএলে ব্যক্তিগত নৈপুণ্যে ক্যাপ্টেন মাশরাফি বেশ উজ্জ্বল । টুর্নামেন্টে ১২ উইকেট শিকারের পাশাপাশি ব্যাট হাতেও বেশ কিছু ক্যামিও ইনিংস খেলেছেন।

মাশরাফি সাধারনত ২১ মিটার রান আপ নিয়ে থাকলেও ইদানিং ১২ মিটার রান আপ নিয়ে বোলিং করছেন। শর্ট রান আপে মানিয়েও নিয়েছেন দারুন। সবচেয়ে বড় কথা রান আপ কম নিলেও বোলিং এর ধার একটুকুও কমেনি। গতিও ঠিক থাকছে, পাশাপাশি বলের মুভমেন্ট হচ্ছে দারুন যা সিমিং উইকেটে খুবই কার্যকরী হবে।

বাংলাদেশের বর্তমান পেসারদের মাঝে টেস্ট মেটারিয়াল বিবেচনায় রুবেল হোসেন সবচেয়ে এগিয়ে। কিন্তু সাদা পোশাকে বারবার কেন যেন নিজেকে চেনাতে ব্যর্থ হন। রবিউল ইসলাম সাম্প্রতিক সময়ে টেস্টে বাংলাদেশের সেরা পেসার হলেও ফিটনেস ঘাটতির কারনে দলে অপাংক্তেয়। শফিউল, রাব্বিরা ইংল্যান্ড সিরিজে নিজেদের চেনাতে বর্থ হয়েছেন। আল-আমিন হোসেন শৃঙ্খলাজনিত কারনে বিসিবির সুদৃষ্টিতে নেই। তাসকিন এখনো টেস্ট খেলার জন্য পুরোপুরি ফিট নন। নতুন সেনসেশন কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমান সদ্য ইঞ্জুরি থেকে ফিরলেন। তাই নিউজিল্যান্ড সিরিজে সাদা পোশাকে ক্যাপ্টেন ফ্যান্টাসটিককে আশা করতেই পারেন টাইগার সমর্থকেরা । টেস্ট ক্রিকেটে প্রত্যাবর্তন নিয়ে মাশরাফি নিজে কি ভাবছেন সেটার পাশাপাশি কোচ হাতুড়েসিংহে কি ভাবছেন সেটাও গুরুত্বপূর্ণ। কোচের সবুজ সংকেত পেলে হয়তবা টেস্টেও নেতা হিসেবে মাশরাফিকেই দেখা যেতে পারে। মাশরাফিও নিশ্চয় সাদা পোশাকে মাঠে নামতে মুখিয়ে আছেন।

Leave a Reply