ম্যাচ প্রিভিউঃ চিটাগাং ভাইকিংস বনাম বরিশাল বুলস

বিপিএল সিজন-৪
ম্যাচ #১১ঃ
‘বরিশাল বুলস’ 🆚 ‘চিটাগাং ভাইকিংস’
সময়ঃ দুপুর ২ টা
সরাসরিঃ চ্যানেল নাইন
ভেন্যুঃ শেরেবাংলা নগর ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর

শুরুটা চমৎকার হলেও বাকি ম্যাচগুলোতে যেন নিজেদের ছায়া হয়েই বিপিএল এর চতুর্থ আসর পার করছে চিটাগাং ভাইকিংস! নিজেদের প্রথম ম্যাচে গত আসরের চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে হারিয়ে নিজেদের সামর্থের জানান দিয়েছিল ভাইকিংস। কিন্তু পরের দুই ম্যাচে রংপুর এবং খুলনার সাথে পরাজিত হয়ে আপাতত ব্যাকফুটেই আছে তামিমের চিটাগাং ভাইকিংস। প্রথম ম্যাচে অর্ধ শতকের দেখা পেলেও বাকি দুই ম্যাচে নিষ্প্রভ ভাইকিংস দলপতি। তামিমের রান না পাওয়ার কারণে সাফার করতে হচ্ছে চট্টগ্রামের। আর এক উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ডুয়েন স্মিথ এখনো নিজেকে খুঁজে পেতেই ব্যস্ত। ব্যাটিং এ আনামুল বিজয়, পাকিস্তানী শোয়েব মালিক এবং আফগানিস্তানের মোহাম্মদ নাবী কিছুটা সাহায্য করলেও বোলিং এ একাই দলকে টেনে নিচ্ছেন মোহাম্মদ নাবী। আব্দুর রাজ্জাক, তাসকিন আহমেদ এখন পর্যন্ত তেমন কোন ইম্প্যাক্ট রাখতেই পারে নি কোন ম্যাচে। যার ফলাফল পেয়েছে চিটাগাং ভাইকিংকস। ৩ ম্যাচে ১ জয় এবং ২ টি পরাজয় নিয়ে এই মুহূর্তে পয়েন্ট তালিকায় ষষ্ঠ অবস্থানে অবস্থান করছে তারা।

চিটাগাং ভাইকিংস এর সম্পূর্ণ বিপরীত বলা যায় বরিশাল বুলসকে। নিজেদের প্রথম ম্যাচে ঢাকা ডাইনামাইটস এর কাছে হেরে গেলেও ফিরে এসেছে শক্তিশালী হয়েই। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স আর শক্তিশালী রাজশাহী কিংসকে হারিয়ে আত্ম বিশ্বাস ফিরে পেয়েছে তারা। দলপতি মুশফিকুর রহিম, শাহরিয়ার নাফিস, থিসারা পেরেরা রয়েছেন দারুণ ফর্মে। নিজেদের গত ম্যাচেই রাজশাহীর বিপক্ষে ১৯২ রানের স্কোর করে নিজেদের ব্যাটিং শক্তির প্রদর্শন করেছে তারা। নিজেদের বোলিং নিয়ে অবশ্য একটু চিন্তা করতেই হচ্ছে বরিশালের অধিনায়ককে।

চট্টগ্রামের টপ অর্ডারের ব্যর্থতা আর বোলিং এ নিষ্প্রভতা এই ম্যাচটিতে বরিশালকে কিছুটা এগিয়েই রাখছে। তবে খেলার মাঠে এই দূরত্ব বদলে যেতে অবশ্য সময় লাগবে না।

পয়েন্ট টেবিলে দুই দলের অবস্থানঃ
চিটাগাং ভাইকিংসঃ ৩ ম্যাচে ১ জয় এবং ২ হারে পয়েন্ট টেবিলে অবস্থান ৬ নম্বরে।
বরিশাল বুলসঃ ৩ ম্যাচে ২ জয় এবং ১ হারে পয়েন্ট টেবিলে অবস্থান ৪ নম্বরে।

Leave a Reply