শুভ জন্মদিন বিজয়

এনামুল হক বিজয়!

একরাশ হতাশার নাম। ক্রিকেটে এসেছিলেন ধ্রুবতারা হয়ে। হঠাৎ করে হারিয়ে গেলেন। দীর্ঘ দিন যাবৎ দেশের হয়ে মাঠে দেখা যায়নি এই ডান-হাতি ব্যাটসম্যানকে। দেশের হয়ে তিন ফরম্যাটে পর্যালোচনা করলে বিজয়কে টেস্ট ছাড়া ফেলে দেয়ার উপক্রম হয় না! সময়ের স্রোতের মত আর কত বিজয়কে এভাবে হারিয়ে যেতে দেখব! আজ বাংলাদের স্বাধীনতা বিজয় দিবসের দিনে ক্রিকেটার বিজয়ের জন্ম দিন। দেশের জন্ম দিনে ক্রিকেটার বিজয়ের জন্মদিন ক’জনের সৌভাগ্য হতে পারে!

টেস্ট খেলেছেন ৪টি ম্যাচ, যার মধ্যে ৯.১২ গড়ে রান করেছেন মাত্র ৭৩ রান। টেস্টের লং ভার্শনে গড় অনুযায়ী ভাল না হলে ওডিআই এ নিজের জাত ঠিকই চিনিয়েছেন। ৩০ টি একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলে ৩৫.১৯ গড়ে রান করেছেন ৯৫০। যার মধ্যে ৩টি শতক ও ৩টি অর্ধশতক রয়েছে এই অবহেলিত ব্যাটসম্যানের। অন্যদিকে শর্ট ভার্শনের ক্রিকেটেও বাংলাদেশের হয়ে ভালই ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন বিজয়। টি-টোয়েন্টি গড়ও বাংলাদেশের অনেক ব্যাটসম্যানের থেকে বেশি। ১৩ ম্যাচে ৩২.২৭ গড়ে ৩৫৫ রান নিয়ে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান তিনি।

২০১২ সালের এশিয়া কাপ আসরের ফাইনালে পাকিস্তানের বিপক্ষে হেরে যাওয়ার পর বিজয়ের কান্না আজও ছুঁয়ে যায় দেশের কোটি ক্রিকেট ভক্তদের হৃদয়ে। দেশের প্রতি ভালবাসার অনন্য এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছিলেন তিনি সেই ম্যাচে। কিন্তু সেই বিজয়কেই ভুলে গেলো বাংলাদেশ! স্লো খেলার দোহাই দিয়ে আজ তাঁর জায়গাই হয় না জাতীয় দলে। তিনি নাকি বিগ শর্ট খেলতে পারেন না! অথচ এই বিজয়ই বাংলাদেশের অনেক গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে জয়ের নেপথ্য নায়ক ছিলেন। সেই বিজয়ই আজ একটি হতাশার নামে পরিণত হয়েছে। আজ বিজয় ২৪ বছরে পা দিলেন। বিজয়ের মত প্রতিভাবান দ্রুত হারিয়ে যাবে মেনে নেয়া কষ্ট সাধ্য বটে। এখনো অনেক বছর দেশের হয়ে খেলে যাওয়ার সুযোগ আছে এই তরুন ক্রিকেটারের। আজকের বিজয় দিবসে প্রত্যাশা ক্রিকেটার বিজয় আবার ফিরে আসুক। আবার দেশের হয়ে ২২ গজের ক্রিকেট পিচে ব্যাটিংয়ের ফুলঝুরি ফুটাক। বিজয়ের হাত ধরে দেশের ক্রিকেটে আরো জয় আসুক। বিজয় নামের প্রতিফলন বারবার ঘটুক। ক্রিকেটার বিজয় হয়তো বা কোন একদিন আবার ফিরবে! এই আশায় জানাই তোমায় শুভ জন্মদিন এনামুল হক বিজয়।

Leave a Reply