ম্যাচ প্রিভিউঃ ‘চিটাগাং ভাইকিংস’ বনাম ‘খুলনা টাইটানস’

ম্যাচ #৮ঃ ‘চিটাগাং ভাইকিংস’ 🆚 ‘খুলনা টাইটানস’
সময়ঃ দুপুর ২ টা, সরাসরিঃ চ্যানেল নাইন
ভেন্যুঃ শেরেবাংলা নগর ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
 
নতুন ম্যাচ মানেই সম্পূর্ণ আলাদা আবহ… আরও একটি নতুন সূচনা। কারন শেষ ম্যাচে এই দুই দলেরই রয়েছে তিক্ত হারের অভিজ্ঞতা! খুলনার তিক্ততা হয়তো একটু বেশিই। কারন তারা শেষ ম্যাচে মাত্র ৪৪ রানে অল-আউট হয়ে কুখ্যাত রেকর্ড গড়েছিলো। তবে এসব কিছু ভুলে দুই দলই চাইবে নতুন উদ্যমে মাঠে নামতে। বিপিএলের ব্যস্তসূচীতে ম্যাচ পরাজয়ের ক্লান্তি ভুলতে হয়, নতুন ম্যাচ জয় দিয়েই।
 
চিটাগাং ভাইকিংসের শুরুটা হয়েছিল স্বপ্নের মত করেই। গত আসরের চ্যাম্পিয়নদের সাথে ২৯ রানের দাপুটে জয়, সাথে অধিনায়ক তামিম ইকবালের ড্যাশিং ফিফটি। বোলিং এ মোহাম্মদ নবি নিয়েছিলেন ৪ উইকেট। তবে দ্বিতীয় ম্যাচেই সব কিছু উল্টে যায়। রংপুরের সাথে ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে হার! আজকের ম্যাচেও দৃষ্টি থাকবে ওপেনার তামিম ইকবালের উপর। শুরুটা ভালো হলে পরবর্তীতে আনামুল হক, শোয়েব মালিকতো আছেনই। প্রথম দুই ম্যাচে শোয়েবের স্কোর যথাক্রমে ৪২ এবং ৩০। চিটাগাং ব্যাটিং নির্ভর দল হওয়ায় এরা যেকোন সময় বড় রান করার সামর্থ্য রাখে। চিটাগাং এর বোলিং সাইটটা তেমন ভালো না হলেও স্পিনে মোহাম্মদ নবি এবং শোয়েব মালিক আশা দেখাচ্ছেন। এর সাথে আব্দুর রাজ্জাক এবং তাসকিন আছেন জ্বলে উঠার অপেক্ষায়।
 
অপরদিকে খুলনা টাইটান্সের নিউক্লিওয়াস মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। তবে রিয়াদের ক্যাপ্টেনসি বাদ দিলে খুলনা সাদামাটা দলই। এরা ইতোমধ্যেই লো-স্কোরিং ম্যাচে শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচ উপহার দিয়েছে। শেষ পর্যন্ত হার না মানার মানসিকতা এদেরকে এগিয়ে রাখবে। সম্প্রতি ডিপিএলে ভালো পারফর্ম করা আব্দুল মাজিদ, রিকি ওয়েসেলস, রিয়াদ এবং অলক কাপালি খুলনার ব্যাটিং স্তম্ভ। বোলিং এর নেতৃত্বে থাকবেন প্রথম ম্যাচে চার উইকেট নেয়া জুনায়েদ খান এবং মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ।
ম্যাচ প্রেডিকশনের কথা বললে যে কেউ চিটাগাং এর পক্ষেই বাজি ধরবে। খুব বাজে না খেললে চিটাগাং এর হারার সম্ভাবনা কম। তবে খুলনা আগে ব্যাটিং করে বোর্ডে রান জমা করে ফেলতে পাড়লে চিটাগাং এর বিপদ হতে পারে। শক্তি পার্থক্য যাই হোক, এই দুই দলের কাছ থেকে জমজমাট খেলা আশা করছি।
পয়েন্ট টেবিলে দুই দলের অবস্থানঃ
খুলনা টাইটানসঃ দুই ম্যাচে ১ জয় এবং ১ হারে পয়েন্ট টেবিলে অবস্থান ৬ নম্বরে।
চিটাগাং ভাইকিংসঃ দুই ম্যাচে ১ জয় এবং ১ হারে পয়েন্ট টেবিলে অবস্থান ৪ নম্বরে।
স্কোয়াডঃ
চিটাগাং ভাইকিংসঃ তামিম ইকবাল (অধিনায়ক), আনামুল হক বিজয় (উইকেটকিপার), আব্দুর রাজ্জাক, জহুরুল ইসলাম, শহীদুল ইসলাম, নাজমুল হাসান মিলন, তাসকিন আহমেদ, জুবাইর হোসেন লিখন, সাকলাইন সজীব, শুভাশিষ রয়, জাকির হাসান, শহিদুল ইসলাম, ক্রিস গেইল, শোয়েব মালিক, ডোয়াইন স্মিথ, চতুরঙ্গ ডি সিলভা, মোহাম্মাদ নবী, গ্রান্ট এলিওট, জিভান মেন্ডিস, টায়মাল মিলস।
খুলনা টাইটানসঃ মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), মোশাররফ হোসেন রুবেল, শফিউল ইসলাম, শুভাগত হোম, আরিফুল হক, মোহাম্মদ আবদুল মজিদ, অলক কাপালি, মোহাম্মদ হাসানুজ্জামান, নাঈম ইসলাম জুনিয়র, নূর-হোসেন সাদ্দাম, সাঈদুর রহমান, আবদুল হালিম, নিকোলাস পুরান, রিকি ওয়েসেলস, কেভন কুপার, মোহাম্মদ আসগর, বেনি হাওয়েল, লেন্ডল সিমন্স, বেন লাফলিন, আন্দ্রে ফ্লেচার, জুনাইদ খান।

Leave a Reply