ভারতে নিজেকে চেনাতে মরিয়া মিরাজ

শেষ আন্ডার ১৯ বিশ্বকাপে দেশের হয়ে ভাল ভাবে মাঠ মাতিয়ে ছিলেন তরুন মিরাজ। দলকে সেমিফাইনালে তুলেছিলেন একক প্রচেষ্টায়। ব্যাটিংয়ে অন্যরা যখন ভোগত নিজে এক প্রান্ত আগলে রেখে দলকে জয় এনে দিতেন। দল সেমি ফাইনালে হারলে ও ব্যাটিং বোলিং নৈপুণ্যে হয়েছিলেন টুর্নামেন্ট এর সেরা প্লেয়ার। সেই পার্ফরমেন্সে পেয়ে গেলেন জাতীয় দলে ডাক। আন্ডার নাইন্টিন এর ক্যাপ্টেনকে অনেকেই ধরে নিয়েছিল পরবর্তি সাকিব। কিন্তু সাকিব যে একজন। তার সমতুল্যে আসতে হলে ব্যাট বলে লড়াই করে দেখাতে হবে। টেস্ট ক্রিকেট দিয়ে অভিষেক ঘটানো মিরাজ বোলিংয়ে প্রমাণ করলে ও ব্যাটিংয়ে নিজেকে প্রমাণ করতে বার বার ব্যর্থ। খেলা হয়ে গেছে দুই ‘দু গুনে চারটি’ টেস্ট। দেশের মাটিতে দু’টি ও নিউজিল্যান্ডের মাটিতে দু’টি। দুই অঙের কোটায় গিয়েছেন একবার, যার মধ্যে বেস্ট মাত্র ১০ রান।
বোলিং এর ক্ষেত্রে আমাদের ভিন্ন গল্প শোনায়। ইংল্যান্ডের সাথে অভিষেক সিরিজে টার্নিং উইকেটে হয়ে উঠেছিলেন তুরুপের তাস। দুই টেস্টে নিয়েছিলেন রেকর্ড ১৯ উইকেট। নিউজিল্যান্ড সিরিজে হয়েছিল অনেকটাই নিষ্প্রাণ। দুই টেস্টে নিয়েছেন মাত্র ৪ টি উইকেট। মিশন এবার ভারত! প্রস্তুতি ম্যাচে ভারতের ‘এ’ দলের সাথে ১৬ ওভার বল করে রান দিয়েছেন ৯২! তার ঝুলিতে কোন উইকেট জুটেনি। এ দলের সাথে যখন উইকেট শূন্য তখন কুহলি-জাদেজাদের কিভাবে পরাস্ত করবেন! প্রস্তুতি ম্যাচ শেষে মিরাজকে অনেকটা হতাশ দেখা গেছে। বিডি নিউজের এক সাক্ষাতকারে মিরাজ বলেন-

“ব্যক্তিগত পরিকল্পনা হলো নিজের শক্তির জায়গা অনুযায়ী বল করতে চেষ্টা করব। আমার শক্তির জায়গা হলো ঠিক জায়গায় বল রাখা। সবসময় ভালো জায়গায় বল রাখার চেষ্টা করি। উইকেট নেওয়ার চেষ্টা করি না। উইকেট নেওয়ার চেষ্টা করলে অনক সময় এলোমেলো হতে পারে। সবসময় চেষ্টা করি ধারাবাহিকতা বজায় রাখার জন্য। ভালো জায়গায় বল করার জন্য।”

প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স হতাশাজনক হলেও মিরাজ প্রাপ্তি দেখছেন এখানেই। ধারণা পাওয়া গেছে, টেস্টে কিভাবে খেলতে পারে ভারত।

“প্রস্তুতি ম্যাচটা থেকে আমরা কন্ডিশন সম্পর্কে ধারণা নিতে পেরেছি। বুঝতে পেরেছি কেমন খেলতে পারে ওরা। আমাদের মানসিকতা সেভাবেই গড়ে তুলতে হবে। ভারত সবসময় বোলারদের ওপর দাপট দেখিয়ে খেলবে। আমরা সেটা ভালোই বুঝতে পেরেছি। আমাদেরও সেভাবেই মাঠে নামতে হবে। লক্ষ্য থাকবে কিভাবে রান আটকানো যায়।”

ভারতের সাথে একমাত্র টেস্টে, আশার আলো জাগানো মিরাজ কি অভিষেকের উজ্জ্বল নক্ষত্র হয়ে আবার জ্বলে উঠতে পারবেন! নিজের ব্যাটিংয়ে কি পরিবর্তন দেখাতে সক্ষম হবেন! পরিকল্পনার বাস্তবতা কতটা প্রমাণ করতে পারেন এখন দেখার বিষয়।

Leave a Reply