প্রসঙ্গ র‍্যাংকিংঃ উন্নতি নাকি অবনতি

‘স্বাধীনতা অর্জনের চেয়ে স্বাধীনতা রক্ষা করা বেশি কঠিন’! আইসিসি ওয়ান ডে র‍্যাংকিং নিয়ে এই মধুর পরীক্ষার সামনে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। দীর্ঘ এক বছরের বেশি সময় পরে নিজেদের র‍্যাংকিং নিয়ে দুশ্চিন্তা করতে হচ্ছে বাংলাদেশকে। দুশ্চিন্তার পাশাপাশি র‍্যাংকিং এর উন্নতির পথটাও খোলা আছে বাংলাদেশের সামনে। লংকানদের মাটিতে তাদেরকেই টেস্ট ক্রিকেটে হারিয়ে আত্মবিশ্বাস তুঙ্গে এই মুহূর্তে বাংলাদেশ দলের। নিজেদের পছন্দের ফরম্যাট ওয়ানডে ক্রিকেট নিয়ে তাই একটু বেশি আশাবাদী হতেই পারে বাংলাদেশ।

ওয়ানডে র‍্যাংকিং নিয়ে মূলত চার দলের মধ্যে লড়াইটা বিদ্যমান! ৯৮ পয়েন্ট নিয়ে শ্রীলংকা রয়েছে ছয় নাম্বার পজিশনে। ৯১ র‍্যাংকিং পয়েন্ট নিয়ে বাংলাদেশের অবস্থান সাতে। ৮৯ পয়েন্ট নিয়ে আটে পাকিস্তান এবং ৮৪ পয়েন্ট নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের অবস্থান নয় নাম্বারে। শ্রীলংকার মাটিতে শ্রীলংকা বনাম বাংলাদেশ এবং ক্যারিবিয়ায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ বনাম পাকিস্তানের খেলা থাকায় র‍্যাংকিং এ পরিবর্তন হবার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে। বাংলাদেশ যদি তাঁদের কাংখিত জয় তুলে নিতে পারে তাহলে র‍্যাংকিং নিয়ে দুশ্চিন্তার কিছুই নেই। কিন্তু বাংলাদেশ যদি সব কয়টি ম্যাচেই পরাজিত হয় তাহলে র‍্যাংকিং অবনতি অবশ্যম্ভাবী!

কেমন হতে পারে র‍্যাংকিং এর অবস্থান, তা দেখে নেয়া যাক! র‍্যাংকিং এ বাংলাদেশকে উপরে উঠতে হলে লংকানদের সাথে তিন ম্যাচেই জয় পেতে হবে বাংলাদেশকে। ৩-০ তে সিরিজ জয় করলে বাংলাদেশের র‍্যাংকিং পয়েন্ট হবে ৯৬। অপর দিকে লংকানদের পয়েন্টও হবে ৯৬। তবে সেই সময় বাংলাদেশ এর অবস্থান এর উন্নতি হয়ে ছয় নাম্বারে চলে যাবে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ যদি ২-১ এ সিরিজে জয় লাভ করে তাহলে অবশ্য র‍্যাংকিং এ সাতেই থাকবে বাংলাদেশ। তখন বাংলাদেশের পয়েন্ট হবে ৯৩। তবে ২-১ এ যদি সিরিজ হেরে যায় র‍্যাংকিং পয়েন্ট না কমলেও র‍্যাংক নিয়ে দুশ্চিন্তা করতেই হবে বাংলাদেশকে। আর সিরিজে ৩-০ তে পরাজিত হলে নিশ্চিত অবনমন ঘটবে বাংলাদেশের। ৩-০ তে সিরিজ হারলে ৩ পয়েন্ট কমে ৮৮ পয়েন্টে চলে যাবে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ ৩-০ তে সিরিজ হারলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এর সফলতার দিকে আমাদের চেয়ে থাকতে হবে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ যদি পাকিস্তানকে হোয়াইট ওয়াশ করতে পারে তাহলে আমাদের র‍্যাংকিং পজিশনে কোন পরিবর্তন আসবে না। সেক্ষেত্রে বাংলাদেশের পয়েন্ট থাকবে ৮৮ এবং ক্যারিবিয়রা ৮৭ পয়েন্ট নিয়ে থাকবে নাম্বার আটে। পাকিস্তান যদি এক ম্যাচ জিতে নেয় তাহলে সমান ৮৮ পয়েন্ট নিয়েও সাতে চলে যাবে পাকিস্তান। পাকিস্তান ২-১ এ সিরিজ জিতলে ৯০ পয়েন্ট নিয়ে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ থেকে। পাকিস্তান যদি ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাথে ৩-০ তে জিতে যায় তাহলে বাংলাদেশ লংকানদের সাথে এক ম্যাচ জিতলেও র‍্যাংকিং এর নিচে চলে আসবে। লংকানদের সাথে সিরিজ জিতে নিলে অবশ্য কোন পরিস্থিতিতেই র‍্যাংকিং এ অবনতি হচ্ছে না বাংলাদেশের।

সদ্য সমাপ্ত টেস্ট ম্যাচে জয় নিয়ে আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ দলের কাছে শ্রীলংকাকে হারিয়ে ওয়ানডে র‍্যাংকিং এ নিজেরদের অবস্থান ধরে রাখতে দৃঢ় প্রত্যয়ী বাংলাদেশ দলের উপর আস্থা রাখাই যায়।

Leave a Reply