রাইডার্সে থামলো টাইটান্সের জয়রথ

এবারের বিপিএলের একমাত্র বিস্ময় খুলনা টাইটানস। খেলা শুরুর আগে কেউ হিসাবেই রাখেনি দলটিকে।
কিন্তু মাহমুদউল্লাহর দৃঢ়তায় রীতিমত বাজিমাত করেছে খুলনা।
কিন্তু রংপুরের সামনে আসলেই যেন খেই হারিয়ে ফেলে দলটি। প্রথম দেখায় মাত্র ৪৪ রানেই অল আউট হয়।
তাই আজকের ম্যাচে প্রতিশোধের নেশায় টস জিতে ব্যাটিং নেয় খুলনা। কিন্তু ব্যাটিংয়ে নেমে কোনো সুবিধাই করতে পারেনি তারা।
শুরুতেই আরাফাত সানির থাবায় দুই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে খুলনা। মাহমুদউল্লাহ কিছুটা প্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টা করে। কিন্তু আফ্রিদির কবলে পড়ে সেও প্যাভিলিয়নের পথ ধরে।
৩ উইকেট হারানোর পর তাইবুর রহমান আর রিকি ওয়েসেলস কিছুটা ধীরে খুলনার ইনিংস এগিয়ে নিয়ে যায়। খুলনাকে আশার পথ দেখায় তারা। কিন্তু রুবেল অসাধারণ এক ওভারে দুই ব্যাটসম্যানকে প্যভিলিয়নে পাঠায়। খুলনার সব আশা তখনি শেষ।
২০ ওভার শেষে ১২৫ রানে ৭ উইকেটে শেষ হয় খুলনার ইনিংস। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩২ রান করেন তাইবুর রহমান। রংপুরের পক্ষে আরাফাত সানি, আফ্রিদি ও রুবেল প্রত্যেকেই ২ উইকেট করে নেয়।
সহজ টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই সৌম্যের উইকেট হারায় রংপুর। তারপর বোলিংয়েও আর কোনো সুবিধা করতে পারেনি খুলনা ।
২য় উইকেটে মিথুনের সাথে ৭৪ রানের জুটি গড়ে শেহজাদ।
ব্যক্তিগত ৩৭ রানে শেহজাদ যখন আউট হয় রংপুরের জয় তখন সময়ের ব্যাপার।
শেষদিকে আফ্রিদির ২০ বলে ২৬ রানে ১৯ ওভারে মাত্র ৩ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌছায় রংপুর। ৪৯ রান করে অপরাজিত ছিলেন মিথুন।
২৬ রান আর ২ উইকেট নিয়ে ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ হন শহীদ আফ্রিদি।
আর এই জয়ে পয়েন্ট টেবিলের ১ম স্থানে রংপুর।
খুলনার অবস্থান ২য় স্থানে।
প্রথম ম্যাচ জিতে ১ নম্বরে থেকেই টুর্নামেন্ট শুরু করেছিলো রংপুর। তবে ঢাকার সাথে ৭৮ রানের বড় ব্যাবধানে হেরে তিনে নেমে যায় রংপুর। আজকের ম্যাচ জিতে সেই শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধার করলো রংপুর।

Leave a Reply