সাকিব আরো একটি মাইলফলক পার করলো

বাংলাদেশের সাকিব! হ্যা উনি বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান। যার নাম শুনলেই অলরাউন্ডার তকমা চোখে ভাসে। যিনি বিশ্বের বিভিন্ন লীগে খেলেন অবিরত।যার মুগ্ধতায় বাংলাদেশের ক্রিকেট এগিয়ে যাচ্ছে অনায়াসে। নিজেকে প্রমাণিত করে চলেছেন উনিই বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার। অলরাউন্ডারের উত্থান পতন হলে ও নিজের জায়গায় ঠিকই চলে আসেন। রেকর্ড বইয়ে আরেক বার নাম লেখালেন সাকিব।

বিপিএলে বুধবার রংপুর রাইডার্সের সাথে সব ধরনের টি২০ ক্রিকেট মিলিয়ে ২৫০ উইকেটের মাইল ফলক ছুলেন তিনি। মাত্র নবম বোলার হিসেবে এই মাইল ফলক ছুলেন সাকিব আল হাসান। স্পিনারদের মধ্যে পাকিস্তানের শহীদ আফ্রিদি ও সাঈদ আজমলের পরেই সাকিবের অবস্থান। কিন্তু বা- হাতি স্পিনারদের মধ্যে উনিই প্রথম। ২৫০ উইকেটের মধ্যে জাতীয় দলের হয়ে ৫৪ ম্যাচে ৬৫ উইকেট নিয়েছেন। যার মধ্যে ১৫ রান দিয়ে ৪ উইকেট বেস্ট। টি-২০ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় আসর আইপিএলে নিয়েছেন ৪২ ম্যাচে ৪৩ উইকেট। যার মধ্যে বেস্ট ফিগার ১৭/৩। ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লীগ (সিপিএল) খেলে ১৯ ম্যাচে এই অলরাউন্ডার নিয়েছেন ২৩ উইকেট। যার মধ্যে ৬ রানে ৬ উইকেট নিয়ে এক অনন্য রেকর্ড গড়েছিলেন। বিপিএলে এখন পর্যন্ত চারটি আসরের সব ক’টিতে ভালই করেছে সাকিব, নিজের বনে নিজেই রাজার আদিপত্য বিস্তার করে চলেছেন এই সব্যসাচী সাকিব। এখন পর্যন্ত ৪৪ ম্যাচে ৫৭টি উইকেট নিয়ে বিপিএলের সব ক’টি আসর মিলিয়ে উইকেট শিকারি হিসেবে প্রথম অবস্থানে আছেন তিনি। অন্যান্য টি২০ লীগ খেলে নিয়েছেন ৬৩ উইকেট। সাকিব আল হাসানের বয়স এখন ২৯! মাঠে তার উপস্থিতি জানান দেয় আরও অনেক বছর খেলবেন। ফুরফুরে মেজাজে থাকা সাকিব নিজের টি২০ ক্যারিয়ারের ইতি শেষ কোথায় তা জানতে নিশ্চিত অপেক্ষা করতে হবে সাকিবীয়ানদের।

টি-টুয়েন্টিতে ২৫০ উইকেট পাওয়া বোলারদের তালিকাঃ ওয়েস্ট ইন্ডিজের ডোয়াইন ব্রাভো (৩৫৭), শ্রীলঙ্কার লাসিথ মালিঙ্গা (২৯৯), পাকিস্তানের ইয়াসির আরাফাত (২৮১), দক্ষিণ আফ্রিকার আলফানসো থমাস (২৬৩), পাকিস্তানের সাঈদ আজমল (২৬০), পাকিস্তানের আজহার মেহমুদ (২৫৮) ও অস্ট্রেলিয়া-নেদারল্যান্ডসের ডার্ক ন্যানেস (২৫৭), পাকিস্তানের শহীদ আফ্রিদি (২৫৩), ও বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান (২৫১) উইকেট ।

Leave a Reply