‘ক্রুশিয়াল ম্যাচ – সর্বকালের সেরা নির্ধারণের গুরুত্বপূর্ণ মানদন্ডঃ পর্ব ১’

১. সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যান কে? ব্র্যাডম্যান, ভিভ রিচার্ডস, শচীন টেন্ডুলকার, ব্রায়ান লারা, গ্যারিফিল্ড সোবার্স, জ্যাক হবস – এমন কিছু নাম আপনার মাথায় আসবে। সর্বকালের সেরা ফুটবলার কে? পেলে, ম্যারাডোনা, ক্রুয়েফ, ডি স্টেফেনো, জিদান, মেসি – এরকম কিছু নাম আপনার মাথায় আসবে। প্রত্যেক গ্রেট খেলোয়াড়ের কিছু স্পেশাল দিক আছে আবার কিছু দূর্বল দিকও আছে।

একজন দুর্ভাগা ফ্যানের গল্প!

স্মৃতির পাতাটা একটু উলটোই... ২০১৪ জিম্বাবুয়ে সিরিজ। শেষ ওয়ানডেতে একটা ব্যাটসম্যান এর অভিষেক, সৌম্য সরকার নাম। ভাবলাম সিরিজ জিতে গেছি তাই এক্সপেরিমেন্ট আর কি। চমকে গেলাম কিছুদিন পর, যখন বিশ্বকাপের দলে তার নাম দেখলাম। আজব তো! একটা ওয়ানডে খেলা একজনকে বিশ্বকাপে! ফাইজলামি নাকি! হার্ডহিটার নাকি, আচ্ছা চান্স তো পাইবোই না, হুদাই

পরাজয় দিয়েই শুরু বাংলাদেশের।

বাংলাদেশী ক্রিকেট সমর্থকদের জন্য একটা বাজে দিনই বলা যায়। এত এত আয়োজন, প্রত্যাশাকে শেষ পর্যন্ত হতাশার চাঁদরেই ঢেকে রাখতে হল। সময়ের পার্থক্যের কারণে বাংলাদেশ সময়ে খেলাটা ছিল ভোর চারটা থেকে। শীতের সকালে কাঁথা-কম্বল ছেড়ে টিভির সামনে বসে থাকা! উফ! কিন্তু খেলাটা যে বাংলাদেশের, এত কিছু ভাবার সময় কই। সব বাঁধা

ক্রাইস্টচার্চের কড়চা।

বাংলাদেশ দল এখন চার্চে। চমকে গেলেন তো? চমকানোর কিছু নেই, আপনিও জানেন বাংলাদেশ এখন চার্চে, নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে। এ শহরের মাঠেই রাত পোহালে নামবে আমাদের টাইগারেরা। ২০১৪ সালের পর প্রথমবারের মতো অচেনা কন্ডিশনে। কেমন হবে দল, কে থাকবে দলে ইত্যাদি নিয়ে আলোচনার যেন শেষ নেই। যেই মাঠে খেলা হবে, সেই মাঠটাই বা

ম্যাশ বাহিনী কি পারবে কিউইদের মাঠে জয়ের পতাকা উড়াতে?

২০১৪ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের পর এই প্রথম দেশের বাইরে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। সাম্প্রতিক সময়ে ঘরের মাঠে অপ্রতিরোধ্য হলেও দেশের বাইরে টাইগারদের সামর্থ্য নিয়ে নিন্দুকদের সমালোচনার অন্ত নেই। তিনটি ওয়ানডে, তিনটি টি-টোয়েন্টি ও দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ দল এখন নিউজিল্যান্ডে। ক্রাইস্টচার্চে ওয়ানডে দিয়ে সিরিজ শুরু হবে

ইতিহাসের বাঁকবদল নাকি র‍্যাংকিংয়ে এগিয়ে যাওয়ার সিরিজ?

ক্রিকেটের একনিষ্ঠ অনুসারীদের জন্য এবারের বক্সিং ডে বেশ ব্যস্ত কাটবে, বুঝাই যাচ্ছে। ঘুম থেকে উঠে ঢুলুঢুলু চোখে টিভির সামনে বসবেন বাংলাদেশের খেলা দেখতে। খেলা শেষে যদি ভেবে থাকেন, সকালের কাঁচা ঘুমটা পূর্ণ করবেন, সম্ভব হবে না। সাউথ আফ্রিকা আর শ্রীলংকা নেমে যাবে আপনার ব্যস্ততা বাড়িয়ে দিতে। এমনিতেই সিরিজটা হতে পারতো দারুণ

বিকেএসপি তৃণমূল কাপ অনুর্ধ-১৪ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ২০১৬

বান্দরবান জেলা অনুর্ধ-১৪ দলকে ৬০ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে টূর্ণামেন্ট এর চ্যাম্পিয়ন ফেনি জেলা অনুর্ধ-১৪ দল।   ২১ডিসেম্বর ২০১৬ সাগরিকাস্থ বিভাগীয় মহিলা ক্রীড়া কমপ্লেক্স মাঠে অনুষ্ঠিত টুর্নামেন্ট এর ফাইনাল খেলায় বান্দরবান জেলাকে ৬০ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে টূর্ণামেন্ট এর চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করলো ফেনি জেলা অনুর্ধ-১৪ দল।টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত

বাংলার পঞ্চপান্ডব

ক্রিকেটে মানুষ পন্টিং, গিলক্রিস্ট, হেইডেন ম্যাগ্রা, ওয়ানের যুগে দেখেছে তারা কত ভয়ঙ্কর। তেমনি ভারতের শচিন, সৌরভ, শেওয়াগ, দ্রাবিড়, কুম্বলেকে দেখেছে। শ্রিলংকার আতাপাত্তু, চামিন্দা ভাস, সাঙ্গা, মাহেলার যুগ দেখেছে। আরও অনেক আছে এমন যারা সেই সময়ে নিজ নিজ দেশের কাণ্ডারি হয়ে দাঁড়িয়েছিল। আর আমাদের দেশে মাশরাফি, মুশফিক, তামিম, সাকিব, মাহমুদুল্লাহর যুগটা

শুভ জন্মদিন ড্যারেন স্যামি

শচীন টেন্ডুলকার আপনার মনে কিভাবে জায়গা পাবেন? পরিসংখ্যানে আপনি আগ্রহী হলে পাবেন আন্তর্জাতিক আঙিনায় ৩৪০০০ এর কাছাকাছি রান,৬৬৪ ম্যাচ, প্রথম এবং এখন পর্যন্ত একমাত্র প্লেয়ার হিসেবে শত আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরি দ্বারা। কিন্তু এই নিরস পরিসংখ্যানের ফাঁকফোকর গলে বেরিয়ে যাবে আরো হাজার রেকর্ডগাঁথা। আসলে শচীনকে ঠিক এইসব পরিসংখ্যান দিয়ে যাচাই করে নিজের

সৌম্যের পুনর্জন্মলাভের সফর নাকি আবার হতাশা?

দার্শনিক মরমী লালন সাই এর একটা গান আছে "খাঁচার ভেতর অচীন পাখি কেমনে আসে যায়"! এই গানটা ক্রিকেটের ব্যাটসম্যান রা প্রায়ই নিজেদের সাথে তুলনা করতে পারেন, নিজেকে খাঁচা আর ফর্ম কে পাখি হিসেবে, কখন ফর্ম আসবে, কখন যাবে সেটা বোঝা যায় না, জানাও যায় না। ফর্ম নিয়ে কথা বলা শুরু