ঘরের মাঠে প্রথম ম্যাচেই ভাইকিংসদের হার

চট্টগ্রামে বিপিএল ৪ এর প্রথম ম্যাচেই ঘরের মাঠে ঢাকা ডায়নামাইটস এর কাছে ১৯ রানে হেরেছে চট্টগ্রাম ভাইকিংস। প্রথমে ব্যাট করে ঢাকা করে ১৪৮ রান। জবাবে ১২৯ রানেই শেষ হয় ভাইকিংসদের ব্যাটিং।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ম্যাচ শুরু হয় দুপুর ১টায়। শিশির সমস্যার প্রতিকার হিসেবেই এই পদক্ষেপ।

টস এ জিতে চট্টগ্রাম অধিনায়ক তামিম ইকবাল বন্ধু সাকিব আল হাসান কে ব্যাটিং এ আমন্ত্রণ জানান। ব্যাটিং এ নেমে ভালো শুরু এনে দেয় সাঙ্গাকারা-মেহেদী মারুফ জুটি। মোহাম্মদ নবীর বলে আম্পায়ার এর ভুল সিদ্ধান্তে মারুফ আউট হওয়ার আগে ৪.৪ বলে ৪১ রানের জুটি গড়েন তারা। এরপর নাসির আর সাঙ্গা মিলে ৩১ রানের জুটি করেন। এরপর টাইমাল মিলস নাসির ও সাঙ্গা কে এক ওভারে তুলে নিলে ব্যাকফুটে চলে যায় ঢাকা। ৯৩ রানের মাথায় ড্রেসিং রুমে ফিরে যান অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারানো ঢাকা মোসাদ্দেক এর ২৬ বলে ৩৫ রানের ইনিংসে ভর করে ১৪৮ রানে পৌছায়। চট্টগ্রামের হয়ে ৩টি করে উইকেট নেন টাইমাল মিলস ও মোহাম্মদ নবী। এছাড়াও ইমরান খান নেন একটি উইকেট।

জবাব দিতে নেমে মাত্র ১৩ রানের মাথায় রান আউট এর কবলে পড়ে ফিরে যান চট্টগ্রাম ওপেনার জহুরুল ইসলাম। এরপর ঢাকার নিয়ন্ত্রিত বোলিং এ আর ম্যাচে ফিরতে পারেনি ভাইকিংসরা, নিয়মিত বিরতিতে হারাতে থাকে উইকেট। শেষ পর্যন্ত ১২৯ রানে থামে তাদের ইনিংস। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ২৬ রান করেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল। ঢাকার হয়ে ৩ উইকেট নেন মোহাম্মদ শহীদ। এছাড়া ১টি করে উইকেট নেন ব্রাভো, কোলস এবং নাসির। ৪ ওভারে ২৩ রানে ৩ উইকেট নিয়ে ম্যান অফ দ্য ম্যাচ হয়েছেন মোহাম্মদ শহীদ।

[event_results 421]

তবে এরকম ব্যাটিং সহায়ক পিচে টস জিতে তামিম ইকবালের ফিল্ডিং এর সিদ্ধান্ত ছিলো অত্যন্ত আশ্চর্যজনক। এছাড়া এরকম পিচে দুই দলের এরূপ ব্যাটিং ধ্বস ও অবাক করার মতই। এই জয় দিয়ে শীর্ষে থাকা ঢাকার পয়েন্ট এখন ৮, অন্যদিকে ৬ষ্ঠ স্থানে থাকা চট্টগ্রামের পয়েন্ট মাত্র ২। তাড়াতাড়ি ঘুরে না দাড়ালে কপাল দুর্ভোগ ই আছে চাটগাঁইয়া দের!

Leave a Reply